Logo

ইচ্ছেমতো বাসে ভাড়া আদায়, দেখার কেউ নেই

রিপোটার : / ৬২ বার শেয়ার হয়েছে
প্রকাশিত : সোমবার, ৮ নভেম্বর, ২০২১

রাজধানীর সাইনবোর্ড থেকে গুলিস্তান পর্যন্ত আগে সিটিং পরিবহনে ২০ টাকা ভাড়া নিলেও এখন ৩০ টাকা করে নেওয়া হচ্ছে। পরিবহন ধর্মঘট তুলে নেওয়ার পরের দিন সোমবার (৮নভেম্বর)   রাজধানীর বিভিন্ন রুটে চলাচলকারী বাসগুলোতে আগের চেয়ে ৫০ শতাংশ বাড়তি ভাড়া আদায় করতে দেখা গেছে। 

এছাড়াও কিছু কিছু বাস যাত্রীদের কাছ থেকে ৫০ শতাংশের বেশি ভাড়া আদায় করছে বলেও অভিযোগ পাওয়া গেছে।

যদিও রোববার (৭ নভেম্বর) বিআরটিএ সঙ্গে পরিবহন মালিক সমিতির বৈঠকে মহানগরে ২৬ দশমিক ৫ শতাংশ ভাড়া বাড়ানোর প্রস্তাব করা হয়।  কিন্তু সে সিদ্ধান্তকে মানতে দেখা যায়নি কোনো পরিবহন মালিককে।

লোকাল বাসে (শ্রাবন ও তারাবো, কোমল) সাইনবোর্ড থেকে গুলিস্তান ১৫ টাকার ভাড়া ২৫টাকা নিতে দেখা গেছে।

এয়ারপোর্ট-বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউ পরিবহন লিমিটেড গুলিস্তান থেকে ফার্মগেট পর্যন্ত ১০টাকার ভাড়া ১৫ টাকা করে নিচ্ছে। 

এই বাসের যাত্রী মো. আবুল কাশেম ও রহমত আলী বলেন, গুলিস্তান থেকে ফার্মগেটে আমাদের কাছ থেকে আজকে ১৫ টাকা করে ভাড়া নিয়েছে। আগে এ পর্যন্ত যেতে ভাড়া দিতে হতো ১০ টাকা।

ওই বাসের চালক সুলতান হোসেন বলেন, গুলিস্তান থেকে ফার্মগেটের ভাড়া ১০ টাকার জায়গায় ১৫ টাকা নিচ্ছি। মালিক সমিতি এই ভাড়া নিতে বলছে। সোমবার বিকেলের মধ্যে ভাড়ার চার্ট গাড়িতে লাগানো হবে।

আজমেরী পরিবহনের বাস আবার গুলিস্তান থেকে আবদুল্লাহপুর পর্যন্ত ৫০ শতাংশের বেশি ভাড়া আদায় করতে দেখা গেছে। 

এই পরিবহানের যাত্রী মো. হাসান মাহমুদ বলেন, ‘আমি গুলিস্তান থেকে আবদুল্লাহপুর যাচ্ছি। গুলিস্তান-আবদুল্লাহপুর ভাড়া ছিল ৩৫ টাকা, এখন নিচ্ছে ৬৫ টাকা। মধ্যবিত্ত ও নিম্নবিত্তের মধ্যে নীরব দুর্ভিক্ষ চলছে। কিন্তু দেখার কেউ নেই। ‘

গুলিস্তানের  ব্যবসায়ী আহাম্মাদুল্লাহ  বলেন, ‘প্রতি লিটার  তেলের দাম ১৫ টাকা বাড়ানো  অযৌক্তিক। লিটারে ৫/৬ টাকা করে বাড়ালে সাধারণ মানুষের জন্য ভালো হতো। নিত্যপ্রয়োজনীয় পন্যের দাম বেড়েছে। এখন আবার বেড়েছে তেলের দাম। কী আর করার নিরবে হজম করতে হবে।’


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন...

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০